রাজবাড়ীতে বন্দুকযুদ্ধে চরমপন্থী নিহত

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে লালন হালদার (৪০) নামে পূর্ব বাংলা কমিউনিস্ট পার্টির সদস্য নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার (২৭ জুলাই) ভোরে উপজেলার হাবাসপুর এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের এ ঘটনা ঘটে।

লালন হালদার পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত জীতেন হালদারের ছেলে। পুলিশের ভাষ্য, লালন নিষিদ্ধ চরমপন্থী সংগঠন পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টির (লাল পতাকা) জুলহাস বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড। তার বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতিসহ বিভিন্ন অভিযোগে চারটি মামলা রয়েছে।

সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (পাংশা সার্কেল) মো. ফজলুল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, রাতে চরমপন্থী নেতা লালন ও তার দলের অন্য সদস্যরা পাংশা উপজেলার হাবাসপুর এলাকায় পদ্মা নদীর তীরে গোপন বৈঠক করছিল। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে চরমপন্থী দলের সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। জবাবে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে লালন গুলিবিদ্ধ হয়।

পরে তাকে উদ্ধার করে পাংশা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বন্দুকযুদ্ধে আহত হয়েছে দুই কনস্টেবল। এসময় ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটার গান, একটি একনলা বন্দুক ও ৬ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আরএম/