‘শিক্ষার্থীদের কোমরে দড়ি দিয়ে রিমান্ডে নেওয়া জাতির জন্য লজ্জাজনক’

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, শিক্ষার্থীদের কোমরে দড়ি দিয়ে রিমান্ডে নেওয়া জাতির জন্য লজ্জাজনক।

বুধবার (৮ আগস্ট) সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, ২২ শিক্ষার্থীকে কোমরে দড়ি লাগিয়ে রিমান্ডে নেয়া হচ্ছে। এ যেন গোটা ছাত্রসমাজের কোমরে দড়ি বেঁধে টেনে নেওয়া হচ্ছে। এটি জাতির জন্য শুধু লজ্জার নয়, এ দৃশ্য দেখে মানুষ ধিক্কার জানাচ্ছে। সরকার কতটা নিষ্ঠুর-নির্মম হতে পারে যে কোমলমতি ছাত্রছাত্রীদের ন্যায্য আন্দোলনের দাবি দমন করতে তাদের গ্রেফতার করে পায়ে ডাণ্ডাবেড়ি ও কোমরে দড়ি দিয়ে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যাচ্ছে।

বিএনপির এ নেতা বলেন, শিক্ষার্থীরা তো কোনো অন্যায় করেনি। নিরাপদ সড়কের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে। এমন ন্যক্কারজনক দৃশ্যের নিন্দা জানানোর ভাষা আমার নেই। অবিলম্বে তাদের রিমান্ড বাতিল করে মুক্তি দিতে হবে।

গতকাল মঙ্গলবারও চলমান ছাত্র আন্দোলনে যোগ দেয়ার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয় শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগ বের করে দিয়েছে বলে জানান তিনি।

ছাত্রলীগকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি-ফ্যাক্টো কর্তৃপক্ষ মন্তব্য করে রিজভী বলেন, তাদের কথায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ওঠেবসে। সে জন্যই ছাত্রলীগের হুকুমেই তামিল করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ছাত্রলীগের কারণেই সেখানে সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের কোনো নিরাপত্তা নেই।

তবে সর্বব্যাপী নিপীড়নের বিরুদ্ধে ছাত্ররা প্রতিরোধ গড়ে তুলছে। তাদের দমিয়ে রাখা যাবে না। ন্যায্য দাবির আন্দোলনে তারা বিজযী হবেই,’ যোগ করেন তিনি।

আজকের বাজার/এমএইচ